সাবধান! কোলবালিসে পুরুষাঙ্গ ঘষে উত্তেজনায় বীর্য বের করলে এই অবস্থা আপনারও হতে পারে (ভিডিওসহ)

গোপন ভিডিওটি দেখতে প্রাপ্তবয়স্করা নিচের ছবি তে ক্লিক করুন। শুধুমাত্র প্রাপ্তবয়স্কদের জন্যে। বাচ্চাদের জন্যে নয়।

প্রশ্ন: বিছানায় ঘষে কাম উত্তেজনা প্রশমিত করাটা কি ঝুঁকিপূর্ণ? হস্তমৈথুন এর সাথে এটার তফাত কি? দিন দিন আসক্ত হয়ে যাচ্ছি, এটার ক্ষতিকর প্রভাব ও প্রতিকার সম্পর্কে বলবেন কি?

উত্তর: হ্যাঁ, বিছানায় ঘষে কাম উত্তেজনা প্রশমিত করাটা ঝুঁকিপূর্ণ, হস্তের (হাতের) মাধ্যমে লিঙ্গকে মৈথুন করে বীর্যপাত করা হচ্ছে হস্তমৈথুন। বিছানায় ঘষে কাম উত্তেজনা প্রশমিত করাটাও প্রায় সমান ব্যাপার।

১৯৯৮ সালে ডক্টর লওয়ারেন্স আই. সেন্ক (সেন্টার ফর কগনিটিভ থেরাপি ইন বিথ্‌হিসডা, মেরীল্যান্ড) জার্নাল অব সেক্স এন্ড মেরিটিয়াল থেরাপিতে একটি আটির্কেলের মাধ্যমে টিএমএস সম্পর্কে বিশদ বিবরণ প্রকাশ করেন।

১৮+ ভিডিওটি দেখতে নিচের ছবিতে ক্লিক করুন। বাচ্চারা ভুলেও ক্লিক করবেনা, দূরে থাকো।

Traumatic Masturbatory Syndrome, হল এমন একটি স্বমৈথুন্য অভ্যাস যা পুরুষ বিছানায় উপুড় হয়ে করে থাকে। কিছু টিএমএস রোগী তাদের লিঙ্গকে বিছানা, বালিশ বা অন্য কোনো শক্ত বস্তুতে ঘষে থাকে। আবার অনেকে তাদের হাতকে ব্যবহার করে।

সমস্যা :

উপুড় হয়ে শুয়ে স্বমৈথুন্য করলে বা বিছানায় ঘষে কাম উত্তেজনা প্রশমিত করলে শরীরের সমস্ত চাপ লিঙ্গের উপর পড়ে বিশেষ করে লিঙ্গের গোড়ার দিকে।

যেহেতু এটা কোনো স্বাভাবিক অভ্যাস নয় তাই এটি নারী সঙ্গীর সাথে শারীরিক যৌন মিলনে গুরুতর সমস্যার সৃষ্টি করে। জরিপে দেখা গেছে যারা স্বাভাবিক স্বমৈথুন্য করেছেন তারা টিএমএস অভ্যস্ত ব্যক্তির চেয়ে শতকরা ৬.৬ ভাগ বেশি যৌন মিলন করতে পারেন।

ভিডিওটি এইখানে, নিচের ছবিতে ক্লিক করে ফ্রি দেখুন ভিডিওটি... পোস্টটি সেয়ার করবেন। আপনার একটি সেয়ারেই বেঁচে যাবে হাজারো মানুষের প্রান।