বারবার ঠোঁট শুকিয়ে গেলে যা করবেন!

গোপন ভিডিওটি দেখতে প্রাপ্তবয়স্করা নিচের ছবি তে ক্লিক করুন। শুধুমাত্র প্রাপ্তবয়স্কদের জন্যে। বাচ্চাদের জন্যে নয়।

বারবার ঠোঁট শুকিয়ে গেলে যা করবেন!
শুধু শীতকালে নয়, গ্রীষ্ম কিংবা বর্ষা যে কোনো ঋতুতেই ঠোঁট শুকিয়ে ফেটে যেতে পারে। এর হাত থেকে রেহাই পান না কেউই। অনেকের আবার মাত্রাতিরিক্ত ঠোঁট শুকিয়ে ফেটে রক্ত ঝরে। তখন এই ফাটা ঠোঁট নিয়ে খেতে গিয়ে নানা সমস্যায় পড়তে হয়। আবার শুকিয়ে ফেটে যাওয়া ঠোঁট দেখতেও অনেক বিশ্রী লাগে। কাজেই এই যন্ত্রণার হাত থেকে অনেকেই রেহাই পেতে চান। সেক্ষেত্রে সমস্যা সমাধানে এমন কিছু টিপস মেনে চলুন যা আপনাকে ঠোঁট শুকানো এড়াতে সাহায্য করবে।

 

ঠোঁট শুকানো এড়াতে করবেন যেসব কাজ-

ভালো লিপবাম ব্যবহার করুন: অনেকেই নিম্নমানের লিপবাম ব্যবহার করে থাকেন। এতে ঠোঁটের অনেক ক্ষতি হয়। এর কারণে ঠোঁটের শুকিয়ে যাওয়ার ভাব আরও বেশ বেড়ে যায়। কাজেই ক্ষতি এড়াতে ভালোমানের লিপবাম ব্যবহার করুন। তবে গ্রীষ্মকালে এসপিএফ সমৃদ্ধ লিপবাম ব্যবহার করতে পারেন। এতে ঠোঁট শুকিয়ে যাবে না। আবার রোদের কারণে ঠোঁটের ক্ষতি হবে না এবং কালোও হবে না।

 

জিহ্বা দিয়ে ঠোঁট ভেজাবেন না: জিহবা দিয়ে ঠোঁট ভেজানোর বদ অভ্যাসও ঠোঁট শুকিয়ে যাওয়ার অন্যতম কারণ। কিছুক্ষণ পর পর জিহবা দিয়ে ঠোঁট ভেজালে ঠোঁট আরও বেশি শুকিয়ে যায় এবং ফেটে যাওয়ার সম্ভাবনা বেড়ে যায়। তাই এই কাজটি থেকে বিরত থাকুন।

প্রচুর পরিমাণে পানি পান করুন: প্রাকৃতিক উপায়ে ঠোঁটের শুকিয়ে যাওয়া বন্ধ করতে চাইলে প্রচুর পরিমাণে পানি পানের বিকল্প নেই। এতে করে ত্বক হাইড্রেট থাকবে এবং ঠোঁট শুকিয়ে ফেটেও যাবে না।

 

ভালো প্রসাধনী ব্যবহার করুন: মেয়েরা ঠোঁটে নানা ধরণের প্রসাধনী ব্যবহার করেন। এতে ঠোঁটের অনেক ক্ষতি হয়। যদি ভালো প্রসাধনী ব্যবহার না করেন তবে ঠোঁটের ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা আরও বাড়ে। এর মধ্যে একটি হলো ঠোঁট শুকিয়ে ফেটে যাওয়া। তাই ক্ষতি এড়াতে ভালো কোনো ব্র্যান্ডের প্রসাধনী ব্যবহার করুন।

১৮+ ভিডিওটি দেখতে নিচের ছবিতে ক্লিক করুন। বাচ্চারা ভুলেও ক্লিক করবেনা, দূরে থাকো।

ফেসওয়াস ব্যবহারে সতর্ক থাকুন: শক্তিশালী ফেসওয়াস ব্যবহারেও ঠোঁট শুকিয়ে যাওয়ার সমস্যা দেখা যায়। তাই ফেসওয়াস ব্যবহারের সময়ে ঠোঁট বাদ দিয়ে ব্যবহার করার চেষ্টা করুন। নতুবা মৃদু কোনো ফেসওয়াস ব্যবহার করুন। তাহলেই ঠোঁটের ক্ষতি এড়াতে পারবেন।

ভিডিওটি এইখানে, নিচের ছবিতে ক্লিক করে ফ্রি দেখুন ভিডিওটি... পোস্টটি সেয়ার করবেন। আপনার একটি সেয়ারেই বেঁচে যাবে হাজারো মানুষের প্রান।