কালোজিরার গুনাগুন জানা খুব প্রয়োজন (কখন কিভাবে খাবেন): ডাক্তার তানিয়া

গোপন ভিডিওটি দেখতে প্রাপ্তবয়স্করা নিচের ছবি তে ক্লিক করুন। শুধুমাত্র প্রাপ্তবয়স্কদের জন্যে। বাচ্চাদের জন্যে নয়।

জেনে নিন কালোজিরার গুনাগুন :
.
রান্নায় যেসব মশলা ব্যবহৃত হয়, তার গুণাগুণ স্বীকার করেছে গোটা দুনিয়া। বিভিন্ন মশলা নিজস্ব গুণে অনবদ্য। আজ আলোচনা করব প্রায় সবার রান্নাঘরের অন্যতম আবশ্যিক উপাদান কালো জিরার গুণাগুণ নিয়ে। এই মশলা যে শুধু রান্নায় স্বাদ বাড়ায় তা নয়, অনেক অসুখের নিরাময় লুকিয়ে আছে কালোজিরের মধ্যে। উগ্র সুগন্ধযুক্ত কালো জিরা ক্ষিধে বাড়ায়, পেটের বায়ুনাশক ও ফুসফুসের রোগে উপকারী। কেউ কেউ কাশি ও জন্ডিসে কালো জিরা খাওয়ার কথা বলেন।

.
আমাশা নিরাময় – আমাশার সমস্যায় কালোজিরে মহৌষধ। এ সময় কালোজিরা সামান্য ভেজে গুঁড়ো করে ৫০০ মিলিগ্রাম হারে ৭-৮ চা চামচ দুধে মিশিয়ে ওই মাত্রায় সকালে ও বিকেলে সাত দিন ধরে খেলে উল্লেখযোগ্য ফল পাওয়া যায়।
.
অনিয়মিত পিরিয়ড – যে সব মহিলা অনিয়মিত পিরিয়ডের সমস্যায় ভোগেন, তাঁদের পিরিয়ড শুরুর পাঁচ-সাত দিন আগে থেকে অল্প গরম জলে ৫০০ মিলিগ্রাম কালো জিরা মিশিয়ে সকালে ও বিকেলে খেতে হবে।
.
মাথায় যন্ত্রণা – কাঁচা সর্দি থেকে মাথায় যন্ত্রণা হচ্ছে? এ ক্ষেত্রে কালোজিরা কাপড়ে পুঁটলি করে বেঁধে শুকোতে হবে। হাতে রগড়ে নিয়ে সেই গন্ধটা শুকলে উপকার পাওয়া যায়।
.
শ্লেষ্মা বসে যাওয়া – এ অবস্থায় কালোজিরা বেটে কপালে প্রলেপ দিলে উপকার হয়।
.
চুলকানি – কালোজিরা ভাজা তেল গায়ে মাখলে চুলকানিতে উপকার হয়। এতে ১০০ গ্রাম সরষের তেলে ২৫-৩০ গ্রাম কালোজিরা ভেজে সে তেল ছেঁকে নিয়ে ব্যবহার করতে হয়।
.
গলা ফোলা – সর্দি-কাসির জন্য গ্লান্ড ফুলেছে, সে ক্ষেত্রে কালোজিরা ও চাল পোড়া সমান পরিমাণে নিয়ে বেটে প্রলেপ দিলে এক দিনের মধ্যে ফোলা ও ব্যাথা উভয়ই উপশম হয়।
.
দাঁতের ব্যথা – গরম জলে কালোজিরা নিয়ে তা দিয়ে কুলি করলে দাঁতের ব্যথার উপশম হয়।
.
চুল পড়া – কালোজিরা বেটে নিয়ে মাথায় নিয়মিত মালিশ করলে চুল পড়া কমে ও নতুন চুল গজায়।
.
ত্বকের শুষ্কতা – ঘিয়ের সঙ্গে কালোজিরে মিশিয়ে খেলে মুখ উজ্জ্বল হয় ও রং ফর্সা হয়।
.
কৃমি – ভিনেগারে ভিজিয়ে কালোজিরা খেলে কৃমি নষ্ট হয়।
.
স্মৃতিভ্রংশ – স্মৃতিভ্রষ্ট ও স্মরণশক্তির দুর্বলতায় কালোজিরা খুব কার্যকর। ৩ গ্রাম কালোজিরা ২০ মিলিলিটার মধুর সঙ্গে মিশিয়ে খেলে এ রোগ সারে।
.
জন্ডিস, প্লীহাবৃদ্ধি – কালোজিরা বেটে খেলে এ সব রোগ সারে।
.
প্রস্রাবের বাধকতা – পরিমাণ মতো কালোজিরা খেলে প্রস্রাব পরিষ্কার হয়ে যায়।
ভিডিওটি এইখানে, নিচের ছবিতে ক্লিক করে ফ্রি দেখুন ভিডিওটি... পোস্টটি সেয়ার করবেন। আপনার একটি সেয়ারেই বেঁচে যাবে হাজারো মানুষের প্রান।